চেয়ারম্যান স্যার এর বাণী


teacher (11)

পবিত্র আল-কোরআনের প্রথম বাণীই ছিল-ইকরা বিস্মি রব্বি কাল্লাযী খলাক্ব- ‘পড় তোমার প্রভুর নামে, যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন’। আবহমানকাল থেকে যুগের বিবর্তনের মধ্য দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থার ক্রমধারা বহমান। শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা সর্বযুগে সমান অনুভূত না হলেও এ বিশ্বায়নের যুগে শিক্ষার বিকল্প নেই। শিক্ষা এমনই বহুমুখী বিষয়- যা যুবকের মাধূর্য, বৃদ্ধের সান্ত্বনা, গরিবের ধন, ধনীর অলঙ্কার।

বর্তমান কালে শিক্ষা ব্যবস্থায় আধুনিকায়নের ফলে পড়াশোনা হয়ে পড়েছে চেতনা ও গবেষণা নির্ভর। যার দরুন ভাল ফলাফল ও প্রতিযোগিতার যুদ্ধে সাফল্য লাভ করতে ভাল শিক্ষক ও শিক্ষাঙ্গণে সুষ্ঠ পরিবেশের বিকল্প নেই। আর এ বিষয়টি লক্ষ রেখেই অত্র এলাকার সর্বস্তরের ছেলে মেয়ের মেধা বিকাশের মাধ্যমে তাদেরকে অভিষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়ার প্রত্যয় নিয়ে ২০০০ সালের ১ জানুয়ারি প্রাথমিক পর্যায় দিয়ে জেনুইন রেসিডেন্সিয়াল স্কুলটির কার্যক্রম শুরু করি এবং ব্যাপক সফলতার মধ্য দিয়ে অগ্রসর হই। যার ফলে ২০০৫ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়টি মাধ্যমিক শাখায় উন্নীত হয়। এ ক্ষেত্রেও এলাকার সর্বজনের ঐকান্তিক সহযোগিতায় আমরা সর্বৈব সফলতা লাভ করি। বর্তমানে স্কুলের নামেই ছাত্র-ছাত্রীরা এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশগ্রগণ করছে।

এ সফলতার ধারাবাহিকতায় চলতি বছর থেকে (২০১৩ সন) কোনাবাড়ীর প্রাণ কেন্দ্রে আজমেরী বাস কাউন্টারের উত্তর পার্শ্বে স্কুল শাখা ও কলেজের কার্যক্রম চালু হয়েছে।  বর্তমানে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তির সুযোগ রয়েছে। একজন ছাত্রকে ভাল মানুষ হতে হলে যেমন ভাল ফলাফল প্রয়োজন তেমনি প্রয়োজন নৈতিক শিক্ষা তথা ধর্মীয় ভাবমূর্তি, স্বদেশ প্রেম, স্বজাত্যবোধ এবং যুগের চাহিদায় নিজেকে তৈরি করা। আর এক্ষেত্রে আদর্শ ও যোগ্য শিক্ষক এবং শিক্ষাঙ্গনের ভূমিকা অগ্রগণ্য।

এ বিষয়টিকে সর্বাধিক শুরুত্ব দিয়েই আমাদের শিক্ষকমন্ডলী নিয়োগপ্রাপ্ত ও শিক্ষাঙ্গনের অবকাঠামো নির্মিত। শুধু তাই নয়, কলেজ পর্যায় সমাপ্তির পর যারা বিদেশে পড়াশুনা করতে আগ্রহী, সেক্ষেত্রে উন্মোচনের জন্য আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। কাজেই অভিভাবকের প্রতি বক্তব্য-সন্তান আপনার, মেধা আপনার সন্তানের আর সেই মেধা ও মননকে বিকশিত করে তাকে যোগ্য মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব আমাদের। আর সেই দায়িত্বকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেই আমাদের অগ্রযাত্রা। আপনার সন্তানের সার্বিক উন্নতির লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানের প্রতি আপনার অধিকার সর্বোচ্চ।

অভিভাবকের যে কোন গঠনমূলক সমালোচনা ও পরামর্শ সানন্দে গৃহীত হবে। সর্বোপরি এলাকার সর্বস্তরের মানুষের সৌহার্দ্যপূর্ণ সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে এবং সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শেষ করছি।

ধন্যবাদান্তে-
মোঃ মাঈনুল ইসলাম টিপু এম.বি.এ (মেজর ইন মার্কেটিং), এম.এ (বি.এড)
চেয়ারম্যান মাঈনুল ইসলাম ফাউন্ডেশন,
জেনুইন রেসিডেন্সিয়াল কলেজ ও জেনুইন রেসিডেন্সিয়াল স্কুল

 

 

প্রিন্সিপাল স্যার এর বার্তা


01

সন্মানীত অভিভাবক ও প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ

আসসালামু আলাইকুম

একথা বলার অপেক্ষা রাখেনা যে বিশ্বব্যাপী শিক্ষাব্যবস্থায় এখন এসেছে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। এযুগের উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশসমূহে উন্নত প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে শিক্ষাক্ষেত্রে এনেছে বিপুল বৈচিত্র ও সমৃদ্ধি। বর্তমান যুগে একজন শিক্ষার্থীকে সব দিক থেকে সক্ষম করে তুলতে বিশ্বমানের প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

একবিংশ শতাব্দীর সূচনা লগ্নে জ্ঞান-বিজ্ঞানের স্রোতধারায় উন্নত জাতি হিসেবে বিশ্ব আসনে সমাসীন হবার প্রধান অবলম্বন হল সু-শিক্ষিত মানব সম্পদ। যে কোন দেশের এ মহা মূল্যবান মানব সম্পদের উন্নয়নে সন্দেহাতীতভাবে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে সে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক সমাজ।

এ কলেজে রয়েছে এক দক্ষ, কর্মতৎপর ও বিদ্যানুরাগী গভর্নিং বডি, অভিজ্ঞ প্রভাষক-প্রভাষিকা মন্ডলী এবং আধুনিক শিক্ষার সকল সুযোগ সুবিধা। এই মহাবিদ্যালয়টি সম্পূর্ণভাবে যানজট, কোলাহল ও ধূমপান মুক্ত মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে অবস্থিত রাজনীতি বিবর্জিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এখানে আছে উচ্চ শিক্ষার প্রাথমিক সোপান-উচ্চ মাধ্যমিক স্তর। এই স্তরে আছে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা সহ সহ-শিক্ষা কার্যক্রমের বিশেষ সুবিধা। পছন্দ মত যেকোন একটি বিভাগ বেছে নিয়ে আপনার সন্তান গড়ে নিবে তার প্রস্ফুটিত সুন্দর ভবিষ্যৎ।

এটি বাস্তব সত্য যে, এস.এস. সি পরীক্ষা পাশের পর শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ  ভালমানের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি নিয়ে প্রায়শঃই উদ্বিগ্ন থাকেন। গাজীপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা অনেক থাকলেও গুণগত ও মানসম্পন্ন আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আজোবধি গড়ে ওঠেনি। বর্তমানে কোচিং-নির্ভর লেখাপড়াই দৃশ্যমান।

শিক্ষা ব্যবস্থার  দৈন্যদশা ও শূন্যতাকে উপলদ্ধি করে Dhaka শিক্ষাবোর্ড অনুমোদিত এই প্রথম একটি মানসম্মত আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জেনুইন রেসিডেন্সিয়াল কলেজ যাত্রা শুরু করলো, যেখানে শিক্ষার্থীরা কোচিং-নির্ভরতা কাটিয়ে এ প্রতিষ্ঠানের ওপর নির্ভর করে আত্মনির্ভরশীল ও যোগ্য হয়ে উঠতে সক্ষম হবে।

আমাদের দক্ষতা,  অভিজ্ঞতা, শক্তি, সামর্থ ও বিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে আমরা কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছাবই ইনশাআল্লাহ।

জেনুইন রেসিডেন্সিয়াল কলেজ– এর এযাত্রা পথে তাই সকলের সহযোগিতা,  শুভদৃষ্টি ও দোয়া কামনা করছি।

 

সুমন কুমার শীল
অধ্যক্ষ
BA Hon’s, MA
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়